Pubg-history & Unknown Facts

PUBG- সম্পর্কে সকল অজানা তথ্য ও ইতিহাস জানুন

PUBG= PlayerUnknown’s Battleground এর সম্পর্কে কিছু Unknown Facts যা জানলে আপনি চমকে উঠবেন।

Contents

PUBG আমাদের যুব সমাজের কাছে খুব ই জনপ্রিয় একটি নাম। আপনি যদি এই নাম টি আমার এই পোস্ট এ প্রথম শুনে থাকেন তাহলে আপনি নিশ্চয় অন্য গ্রহে বসবাস করেন। কারন এই নাম টি এখন এত টাই জনপ্রিয় যে ৭-৩৫ সবাই প্রায় এই জিনিশ টা তে তাদের প্রচুর সময় ব্যয় করে থাকেন। এখন আসি

 

PUBG 2019 Bangla

PUBG কি?

এখন বলতে পারেন পাব্জি কি? কোন জন্তু জানোয়ার বাহ মানুষের নাম? নাহ ভাই এটা একটি অনলাইন মাল্টিপ্লেয়ার ব্যাটেল রয়্যাল গেম এর নাম। যি একটি গেম নিয়েই এত মাতামাতি। মাতামাতি হবেই বা নাহ কেন কারন মাতামাতি করার মত সকল কিছুই এই গেম এর মাঝে আছে। এই গেম টা একবার খেলা শুরু করলে এটা থেকে দূরে থাকা কত টা কষ্টের যারা থেকেছে তাদের থেকে ভালো কেউ ই বলতে পারবে নাহ।

এই গেম টি প্লে স্টোরে পাবলিশ করেছে  PUBG Corporation, যারা মুলত সাউথ কোরিয়া ভিত্তিক গেম তৈরি প্রতিষ্ঠান BlueHole এর একটি সহযোগী প্রতিষ্ঠান।

অবাক তথ্য ১ঃ এই গেম টি ২০০০ সালে মুক্তি প্রাপ্ত জাপানিজ মুভি Battle Royale থেকে অনেকটা অনুপ্রানিত।

এই গেমটি প্রথম মুক্তি পায় মার্চ ২০১৭ তে মাইক্রোসফট এর steam এর  early access এ beta program হিসেবে। এর পরে ডিসেম্বর ২০১৭ তে এটির পরিপূর্ণ ভার্সন মুক্তি দেয়া হয়।

 

Battlegrounds is one of the best-selling and most-played video games of all time, selling over fifty million copies worldwide by June 2018, with over 400 million players in total when including its free-to-play mobile version.——- Wikipedia

 

এক নজরে গেম সম্পর্কে কিছু তথ্যঃ

গেমটির ডিজাইনারঃ    Brendan Greene

   গেমটির ডিরেক্টরঃ    Brendan Greene

 গেমটির প্রযোজকঃ    Chang-han Kim

            ডেভেলপারঃ    PUBG Corporation

                  পরিবেশকঃ    PUBG Corporation

                   প্রথম মুক্তিঃ    December 20, 2017

 

গেমটির ডেভেলপমেন্টঃ

গেমটির ডিজাইনার ও ডিরেক্টর ব্রেনডন ব্রাজিলে থাকা অবস্থায় এই গেমের পূর্বের ভার্সন DayZ: Battle Royale  খেলেন এবুং প্রেমে পরে যান পরে তিনি এই গেমটি নিয়ে কাজ করার দিকে মননিবেশ করেন এবং তিনি একটি সহযে বোধগম্য মাল্টি প্লেয়ার গেম বানাতে চেয়েছিলেন এবং তিনি সেটি করতে সক্ষম হয়েছেন তা আর বলার অপেক্ষা রাখে নাহ।

অজানা তথ্য ২ঃ ব্রেনডন  চেয়েছিলেন সেফ জোন কে বর্গাকৃতির করতে, কিন্তু কিছু কোডিং সমস্যার কারনে সেটাকে বৃত্তাকার তৈরি করেন।

মুলত এই গেম টির কনসেপ্ট টা নিয়ে কাজ শুরু করেন ব্রেনডন, Sony Online নামক কম্পানির সাথে পরে তিনি তাদের সাথে চুক্তি ভঙ্গ করে কিম এর কোম্পানি তে এই কনসেপ্ট নিয়ে কাজ শুরু করেন, অবশেষে তার কাজের পরিনতি আমাদের এই পাব্জি গেম।

অজানা তথ্য ৩ঃ ২০১৬ সালের ডিসেম্বরে এই গেম টি তৈরি করতে ৩৫ জন ডেভেলপার কে নিয়োগ দেয়া হয়, কিন্তু  পরের বছর ই ৭০ জন ডেভেলপার কে নিয়োগ দেয়া হয় কাজ দ্রুত গতিতে করার জন্য।

 

পাবজি মোবাইল ভার্সনঃ

পাব্জি এর উইন্ডোজ ভার্সন এর পাশাপাশি ৯ ফেব্রুয়ারি Tencent Games এর সাথে একটি চুক্তির ভিত্তিতে পাব্জি মোবাইল ভার্সন রিলিজ করে।  এবং রিলিজের পূর্বেই গেমটি 75 million বা সাড়ে ৭ কোটি প্রি-রেজিস্ট্রেশান এর কোটা ছুয়ে ফেলে যা কে এক পর্যায় এর রেকর্ড বলা যায়।

এই গেম টি এখন এত টাই জনপ্রিয় যে ছোট থেকে বড় সবাই এই গেমস টা খেলে। এই গেমস এর মুল বিশেষত্ব হল এই গেম এর সহজ বোধগম্য ইন্তারফেস ও কন্ট্রোল সিস্টেম। এই গেম টি গেমার দের মুলত একটি পারফেক্ট ব্যাটল এর স্বাদ দিয়ে থাকে,তাই এই গেম টি একবার খেল্লে নেশার মত হয়ে যায়। গেম টি গেমার দের আর্মি মিশন এর স্বাদ দেয়, যা আসলে অনেকের ই সপ্নের মত এখন বলতে পারেন এমন মিশন তো কল অব ডিউটি তেও আছে, তবে সেখানে মুলত এভাবে মাল্টি প্লেয়ার ভাবে খেলে মজা পাওয়া জায় নাহ।

সেলস বা বিক্রিঃ

মুক্তির প্রথম তিন দিনে গেমটির উইন্ডোজ ভার্সন থেকে আয় হয় ১১ মিলিয়ন ডলার বা বাংলাদেশি টাকায়  925,606,000 টাকা। যা অনেকটাই জানান দেয় পরবর্তীতে গেমটি কত টুকু জনপ্রিয় হতে পারে। গেমটি রিলিজ এর ১ মাস এর মাথায় আয় করে ফেলে ৩৪ মিলিয়ন ডলার বা 2,860,964,000 টাকা।

কি ভাবছেন গেম বিক্রি করে এত কামিয়ে নিচ্ছে ,আপনি নিজেই একটি গেম বানিয়ে ফেলবেন। আরে বানিয়ে ফেলুন ভাবার কি আছে চেষ্টা করুন হয়ে যাবে।

আর বিনামুল্যে মোটিভেশন চাইতে আমাকে নক দিন। মে মাসের মধ্যে গেমটির উইন্ডোজ ভার্সন বিক্রি হয়ে মোট ২ মিলিওন কপি এবং আয় করে ফেলে প্রায় 5,048,760,000 টাকা। কি গুন্তে গুন্তে হয়রান হয়ে যাচ্ছেন ভাবছেন ব্যাটা লেখক কেন লিখে দেয় নাই কত কোটি টাকা। এর কারন এত কষ্ট করে পোস্ট টি লিখছি নিজেরা ফ্রী পড়ে ফেলবেন তো একটি কষ্ট করেই পরুন।

মুক্তির তিন মাসের মাঝেই গেমটি আয় করে ফেলে পুরো ১০০ মিলিয়ন বাংলা দেশি টাকায় কত নিজেরা গুনে নিন।

একটি প্রতিবেদনে জানা যায় যে গেমটির মালিক প্রতিষ্ঠান এর সুবাদে মাত্র ৬ মাসের মধ্যে ৬.৪ বিলিয়ন ডলার এর ব্যবসা করে ফেলে। ২০১৭ সালে গেমটি আয় করে প্রায় ৭১২ মিলিয়ন এর ব্যবসা করে ফেলে, ফেব্রুয়ারি ২০১৮ তে গেমটি পৃথিবীর ৩য় বেশি বিক্রিত গেম হিসেবে আয়ের রেকর্ড গড়ে।

 

  the Xbox version had sold more than four million copies and was the fourth bestselling game in the United States, according to The NPD Group ——- Wikipedia

 

২০১৮ এর জুন মাসের দিকে প্রকাশ করা হয় যে গেমটি ৪০০ মিলিয়ন প্লেয়ার রেজিস্ট্রেশান সম্পন্ন করে। দৈনিক গড়ে ৮৭ মিলিয়ন প্লেয়ার এই গেম টি খেলে।

যা কোন গেম এর জন্য এক অনন্য রেকর্ড।

এই গেমটির মোবাইল ভার্সন অগাস্ট ২০১৮ তে ১০০ মিলিয়ন ডাউনলোড, অক্টোবর ২০১৮ এ ২২৫ মিলিয়ন এর বেশি ডাউনলোড করা হয়।

অজানা তথ্যঃ এই গেমটির সব থেকে বেশি গেমার ও জনপ্রিয়তা চীন ও ভারতে।

২০১৮ সালে এই গেমটির মোবাইল ভার্সন ২য় সর্বাধিক ডাউনলোড কৃত গেম।

 

কিছু অজানা তথ্য

১। গেমটির নাম মুলত প্লেয়ার আননোন হয় এর প্রতিষ্ঠাতা ব্রেনডন এর নিক নেম থেকে নেয়া।

২। পাব্জি মুলত এক সাথে সব থেকে বেশি গেমার খেলার রেকর্ড গরেছে ডটা ২ ও ভাল্ভে কে হারিয়ে।

৩। গেমটির প্রতিষ্ঠাতা ARMA নামের একটি মোড গেম থেকে পাব্জি গেম টি তৈরি করেন।

৪। পাব্জি কোন প্লাটফর্ম এ সবথেকে বেশি বিক্রিত গেম হিসেবে রেকর্ড গড়ে ২০১৭ সালে।

৫। পাব্জি আপানার খেলাকে সম্পূর্ণ 3D  ও সিনেমাটিক ভাবে রেকর্ড করতে পারে।

 

 

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *